ইতিহাসে প্রথমবারের মতো উটের পিঠে জকি হিসেবে সৌদি নারীরা

অবশেষে সৌদি আরবের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ঘটতে চলেছে এক অবিশ্বাস্য ঘটনা, যা এর আগে ঘটেনি কখনোই। দেশটিতে এই প্রথম উটের জকি হিসেবে কাজ করতে চলেছে সৌদি নারীগণ।

গত শনিবার কিং আব্দুল আজিজ উট ফেস্টিভ্যালের ষষ্ঠ সংস্করণের প্রথম রাউন্ডে মোট ৩৮ জন সৌদি নারী প্রতিযোগীর মধ্যে ১০ জন সৌদি নারী উটের জকি হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করে।

এদিকে সৌদি আরবের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো উটের জকি হিসেবে নারীরা যে দৌড়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নেন, তা দেখার জন্য উপস্থিতদের মধ্যে বিপুল সংখ্যক নারী দর্শকরা উপস্থিত ছিলেন।

সৌদি গেজেটের খবরে বলা হয় রাজধানী রিয়াদের ১০০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে আল-দাহনার দক্ষিণ সায়াহাদাহ জেলায় ৩২ বর্গকিলোমিটার জুড়ে একটি বিস্তীর্ণ এলাকায় অনুষ্ঠিত হওয়া উটের দৌড় প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো মহিলাদের জন্য স্বতন্ত্র খোলা রাউন্ড চালু করা হয়েছে।

উক্ত রেসের বিজয়ীদের ৮৮ মিলিয়ন সৌদি রিয়াল মূল্যের নগদ পুরস্কারে ভূষিত করা হবে, যা তাদের জন্য এযাবৎকালের বিশ্বের সবচেয়ে বড় পুরস্কার। স্বতন্ত্র অংশগ্রহণকারীরা জুরির সামনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন, মোট ৩৮ জনের মধ্যে ১০ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। যোগ্য নারীদের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছে পাঁচজন।

এদিকে সৌদির রাজধানী রিয়াদে বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই উৎসবের আয়োজন চলছে, যা উট বিক্রি এবং উটের সৌন্দর্যে

প্রতিযোগিতা প্রদর্শিত হচ্ছে, সৌদি আরবসহ অন্যান্য উপসাগরীয় ও আরব দেশ থেকে উটের নেতৃস্থানীয় মালিকরা এবং

বিশ্বের বেশ কিছু দেশ থেকে অংশগ্রহণকারী দল অনুষ্ঠানটিতে অংশগ্রহণ করেছে,তাদের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া এবং ফ্রান্স।