‘বাংলাদেশি ভেবে’ ভারতীয়কে বিএসএফের গু’লি

কুড়িগ্রামের রৌমারী সীমান্তে মোহাম্মদ আলী (২০) নামের ভারতীয় এক নাগরিককে গু’লি করে হ’ত্যা করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) টহল দলের সদস্যরা।

গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার খেতারচর সীমান্তের আন্তর্জাতিক সীমানা ১০৫৪ থেকে ১০৫৫ পিলারের কাজে এ ঘটনাটি ঘটে।

নিহত মোহাম্মদ আলী ভারতের আসাম রাজ্যের হাটশিংঙিমারী জেলার পুরান দিয়াড়া থানাধীন পুরান ছাটকড়াইবাড়ীর মণ্ডলকান্দি গ্রামের মো. জাকির হোসেনের ছেলে। তিনি স্থানীয় এক কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

সীমান্তের একাধিক তথ্যসূত্রে জানা গেছে, ভারতীয় কাঁটাতারের ওপরে বাঁশের তৈরি আড়কি লাগিয়ে গরু পারাপারের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশের সীমানায় ঢুকে পড়েন মোহাম্মদ আলী।

পরে ১৫ থেকে ২০ জনের একটি সংঘবব্ধ দল মিলে অ’বৈধভাবে ভারতীয় গরু পারাপারের সময় ভারতের দ্বীপচর বিএসএফ ক্যাম্পের টহলরত সদস্যরা বাংলাদেশি গরু চোরাকারবারিদের লক্ষ্য করে গু’লি ছোড়ে। এতে চোরাকারবারি মোহাম্মদ আলী গু’লিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে নি’হত হন। পরে কাঁটাতারের গেট খুলে মরদেহ তাদের ক্যাম্পে নিয়ে যায় বিএসএফ সদস্যরা।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মিজানুর রহমান জানান, সীমান্তে বাংলাদেশি ভেবে ভারতীয় নাগরিককে গু’লি করে হ’ত্যা করেছে বলে লোকমুখে শুনেছি। তবে কী কারণে গু’লি করেছে তা আমার জানা নেই।

সীমান্তে হ’ত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জানতে চাইলে দাঁতভাঙ্গা বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার জয়েন উদ্দিন বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‘বিএসএফের গু’লিতে ভারতীয় এক নাগরিক নি’হত হওয়ার খবর শুনেছি। তবে নিশ্চিত হয়েছি তিনি বাংলাদেশি নাগরিক না।’